গাংনীতে জরিমানা দিয়ে চোর ছাড়িয়ে নিলেন আ.লীগ নেতা

গাংনীতে জরিমানা দিয়ে চোর ছাড়িয়ে নিলেন আ.লীগ নেতা

চুরি করতে গিয়ে গৃহকর্তার হাতে ধরা পড়লেও আমিন (২২) নামের এক যুবককে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা দিয়ে ছাড়িয়ে নিলেন স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ও ইটভাটার মালিক আব্দুল কুুদ্দুছ ওরফে কালু।

আজ বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) সকালে গাংনী উপজেলার বেতবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এসময় স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইদুল ইসলাম ও গণ্যমান্য বক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, বেতবাড়িয়া গ্রামের আহসান হালসানার ছেলে আমিন, হাবিবুর রহমান ওরফে হাবু’র ছেলে রিজন ও অজ্ঞাত যুবক তিনজন মিলে গতরাতে ভোরের দিকে একই গ্রামের শফিউল ইসলাম শফি মেলেটারীর বাড়িতে চুরি করতে যায়। শফি মেলেটারীর ঘরে স্বর্ণের চেইন চুরি করে পালানোর সময় আমিন নামের ওই যুবক বাউন্ডারি প্রাচীর টপকানোর সময় পা ধরে নামিয়ে ফেলেন গৃহকর্তা। তাকে আটকাতে পারলেও তার অপর দুই সহযোগী পালিয়ে যায়। সকালের দিকে গ্রামের লোকজন জড়ো হলে চুরির অভিযোগে আটকানো যুবক আমিনের পক্ষ নিয়ে দেনদরবার শুরু করেন আব্দুল কুুদ্দুছ ওরফে কালু।

বাড়ির মালিক শফি মেলেটারীকে নানাভাবে চাপ দিয়ে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ছাড়িয়ে নেন তাকে। আমিনকে পুলিশে না দিয়ে ওই প্রভাবশালী কর্তৃক ছাড়িয়ে নেওয়ায় এলাকায় নানা সমালোচনা শুরু হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় এক আওয়ামীলীগ নেতা বলেন, এ ঘটনায় চুরি ডাকাতির ঘটনা বৃদ্ধি পাবে।

আব্দুল কুুদ্দুছ কালু মোবাইল ফোনে বলেন, ছেলেটা লেখাপড়া করে। এজন্য ছাড়িয়ে নেওয়া হয়েছে। এবিষয়টি নিয়ে আপনারা বাড়াবাড়ি কইরেননা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইদুল ইসলাম বলেন, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা এক যায়গায় বসে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বিষয়টি নিয়ে খোঁজ খবর নেয়া হবে।