মেহেরপুর কেয়া স্টোরে ১২শ টাকার ঘড়ি ৩৬৫০ টাকায় বিক্রি

মেহেরপুর কেয়া স্টোরে ১২শ টাকার ঘড়ি ৩৬৫০ টাকায় বিক্রি

মেহেরপুর শহরের নিউ কেয়া স্টোরের মালিক হাফিজুল ইসলাম ১২ শ টাকা দামের ঘড়ি বিক্রি করেন ৩৬৫০ টাকায়।

আর এতেই ক্ষুব্ধ হন ক্রেতা হাসিদুল ইসলাম। অবশেষে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন।

আজ সোমবার (১ আগষ্ট) দুপুরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের চুয়াডাঙ্গা আঞ্চলিক অফিসের সহকারী পরিচালক সজল আহমেদ অভিযান চালান।

অভিযানের সময় সেনেটারী ইন্সপেক্টর তারিকুল ইসলাম, মেহেরপুর বাজার কমিটির সভাপতি মনিরুজ্জামান দিপুসহ বাজার কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নিউ কেয়া স্টোরের মালিক হাফিজুল ইসলাম ঘড়ির মুল্য অপেক্ষা বেশী দাম নেওয়ায় নিজের দোষ স্বীকার করে। পরে ক্রেতা অতিরিক্ত মূল্য ফেরত দিয়ে রক্ষা পাই। নিউ কেয়া স্টোরের মালিক হাফিজুল ইসলামকে সতর্ক করা হয়েছে।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের চুয়াডাঙ্গা আঞ্চলিক অফিসের সহকারী পরিচালক সজল আহমেদ বলেন, হাসিদুল নামের এক ক্রেতা লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পর নিউ কেয়া স্টোরে অভিযান চালানো হয়। নিজের দোষ স্বীকার করে ক্রেতার কাছ থেকে নেয়া অতিরিক্ত টাকা ফেরত দেন কেয়া স্টোরের মালিক হাফিজুল ইসলাম।

পরে দুপুরে দিকে মেহেরপুর শহরের মহিলা কলেজের পাশে মেসার্স মডার্ন ব্রেড এন্ড কনফেকশনারীতে অভিযান চালিয়ে মেয়াদ উত্তীর্ণ বিভিন্ন খাদ্য পণ্য থাকায় তাকে ৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় ও মেয়াদ উত্তীর্ণ বিভিন্ন খাদ্য পণ্য জব্দ করে ধ্বংস করা হয়েছে।